দিব্যেন্দু পালিত : সেরা দিব্যেন্দু

1বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান সাহিত্যিক দিব্যেন্দু পালিত। উপন্যাস যেমন তেমনই ছোটগল্প, কবিতায় যেমন তেমনই প্রবন্ধ ও রম্যরচনায়, চিন্তা ও সৃজনশীলতার স্বাতন্ত্র্য তাঁকে প্রতিষ্ঠিত করেছে অনন্য সাহিত্যিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে।

বিমল মিত্রঃ সাহেব বিবি গোলাম

সাহেব বিবি গোলামওদিকে বউবাজার স্ট্রিট আর এদিকে সেন্ট্রাল এভিনিউ। মাঝখানের সর্পিল গলিটা এতদিন দুটো বড় রাস্তার যোগসূত্র হিসেবে কাজ চালিয়ে এসেছে। কিন্তু আর বুঝি চলল না। বনমালী সরকার লেন বুঝি এবার বাতিল হয়ে গেল রাতারাতি। এতদিনকার গলি।

 

পারমিতা ঘোষ মজুমদার : গণবন্ধন

গণবন্ধনরোহিণীর আগের মত অভিমানের কান্না আর আসে না। গৌরী আজও অন্যমনস্ক হয়ে থাকেন শুভেন্দুকে ভেবে যার হাত ধরে তাঁর জীবনানন্দ, বঙ্গসংস্কৃতি বা কফিহাউস। ওদিকে প্রাণের মানুষকে প্রানে অনুভব করেন এক প্রবীণ প্রেমিক।

 

বাণী বসুঃ পঞ্চম পুরুষ

পঞ্চম পুরুষযোগাযোগটাই নাটকীয়। সেই কবেকার কলেজ জীবনের কিছু পাত্র-পাত্রীর আবার কুড়ি বছর বাদে দেখা হবে মহারাষ্ট্রে। কলকাতা থেকে বক্তৃতার কাজে এসেছেন অধ্যাপক মহানাম। অজন্তার টানে এসেছে মহানামেরই এক পুরনো ছাত্রী এশা।

 

বাণী বসুঃ বৃত্তের বাইরে

ত্তের বাইরেএক সফল পুরুষ বিজু রায়, দ্বিতীয়বার বি-কম পরীক্ষায় বসার আগে বাড়ি থেকে একদা পালিয়ে গিয়েছিল যে দিশেহারা তরুণ, সেই আজকে সফল ব্যবসায়ী বি বি রায়। নানামুখী ব্যাবসায় ফুলে- ফেঁপে উঠা ‘রায় ইন্ড্রাস্টিজ’ এর একচ্ছত্র মালিক।

 

বাণী বসুঃ মৈএেয় জাতক

মৈএেয় জাতকগৌতম বুদ্ধের জীবনকাল তথা ভারত-ইতিহাসের সময়কে অবিকল ও প্রানবন্ত চেহারায় ফিরিয়ে আনতে চেয়েছেন বিদগ্ধ কথাকার বানী বসু, দু- পর্বে সুবিন্যাস্ত তাঁর এই বিশাল , বেগবান, বর্ণময় উপন্যাসে। এই কাহিনীর পটভুমি একদিকে ছুঁয়ে আছে মধ্যদেশ, অন্যদিকে চিরকালীন মানুষের চিরজটিল মনোলক।

 

বাণী বসু : শ্বেতপাথরের থালা

শ্বেতপাথরের থালাযে বয়সে স্বামীকে হারালো বন্দনা, সেই বয়সে তো অনেকের বিয়েই হয়না আজকাল। কিন্তু বন্দনা তো ঠিক এই সময়ের নয়। তাঁর জীবনের এই আকস্মিক ছন্দভঙ্গ আরও চার দশক আগের কথা।

 

মহাশ্বেতা দেবী : হাজার চুরাশীর মা

হাজার চুরাশীর মাসুজাতা অবাক হয়েছিলেন। তিনি তো আশাই করেননি কলকাতায় থাকলেও দিব্যনাথ সঙ্গে আসবেন, ডাক্তার কেন আশা করেন? দিব্যনাথ সঙ্গে আসেন না, সুজাতাকে নিয়ে যান না সময় হলে। নবজাতকের কান্না শুনতে হবে বলে তেতলায় ঘুমান।

 

ধূর্জটিপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় : আমরা ও তাঁহারা

আমরা ও তাঁহারা ধূর্জটিপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ভরিক্কি চালের গবেষণা গ্রন্থ রচনা তাঁর ধাত নয়।ভাবনা এগিয়ে যাবে তরতর করে আর পাঠককে নিয়ে নৌবিহারের মেজাজে এগিয়ে যাবেন লেখক। এরই নাম ধূর্জটিপ্রসাদ । এ ধাচের লেখা বোধয় খোলে ব্যক্তিগত রচনায়। আর সে রচনার আঙ্গিক যদি হয় কথোপকথনের, তাহলে তো সোনায় সোহাগা।