ফাইট ক্লাব

Fight Clubদেখার আগে আমি ভাবিনি ছবিটি এতটা উত্তেজনাকর এবং রহস্যময় হবে। ছবিটি শেষ হওয়ার পর অনেক্ষন চুপ করে বসে ছিলাম। অনেক দিন পর এরকম অসাধারন হৃদয়স্পর্শী একটি ছবি দেখলাম। ছবিটি যে এতটা ভাল হবে আমি তা চিন্তাই করিনি। সিজোফ্রেনিয়া নিয়ে দেখা এটা আমার প্রথম ছবি। আমার কাছে মনে হয়েছ এটা একটি অবিশ্বাস্য শিল্পকর্ম। মনে হয় না অন্য কোন অভিনেতা  এডওয়ার্ড নর্টন এবং ব্র্যাড পিটের মত এত ভাল কাজ করতে পারতো। জীবনকে বদলে দিতে পারে একটি ভাল ছবি। ছবিটি দেখার পরে অনেক দর্শকেরই চিন্তা-চেতনা, মনোজগৎ পাল্টে যেতে পারে।  জীবনের কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বুঝতে সহজ হয়ে যাবে। ছবিটির নাম দেখে আমি ভেবে ছিলাম এটি একটি মারমার-কাটকাট ছবি এবং মারামারিই হবে ছবির মূল বিষয়। কিন্তু ছবিটি দেখে আমি বিস্মিত। যতবার দেখি ততবারই আমি মুগ্ধ হই। শুরুর দিকে অনেকের কাছে ছবিটির গল্প জটিল মনে হলেও হতে পারে কিন্তু শেষ পর্যন্ত দেখলে বুঝতে কষ্ট হবে না।কোনরকমের উচ্চতর প্রযুক্তির সাহায্য ছাড়াই ছবিটি বানানো হয়েছে। আইএমডিবির সেরা মুভির রেটিং এ ৮.৯ রেটিং নিয়ে ১০ তম অবস্থানে আছে। চমৎকার এই ছবিটির শেষের দিকে দর্শকেদের জন্য রয়েছে হতবাক হওয়ার মত কিছু দৃশ্য।

Write a Review with Facebook